Serey is utilizing Blockchain technology

Leaving the workplace for home purposes - বাড়ির উদ্দেশ্যে কর্মস্থল ত্যাগ করা

realsort-elyas

Every human being has a specific place. Forced to go to that place in the midst of hundreds of engagements. And the name of that place is the house of birth. Busyness teaches people something that forces them to leave home. In the pursuit of life man has to leave his own birthplace. But one time he has to go to that place of birth. No man can forget his birthplace. Where his childhood memories are involved, where there is the love of his mother and the rule of his father, the absolute maya of wife and child. So the workplace does not become a permanent address. Every human being like me has to go to his birthplace or place of birth for a while.

 

After a long time, I set off for home. After a long time I will see the faces of my dear people. I can talk to everyone with an open mind. Every child's parents hope that their child will return home. Like parents, every child hopes that their father will bring them toys.

But a man with whom you have to live your whole life. She waits silently, unable to tell when her sweetheart will come home. The man who waits silently, if She gets close to his beloved, there is no limit to his happiness. Because She saw the beloved man after a long time. We are all wrapped in the sheet of love. Life teaches people a lot

প্রতিটি মানুষের একটি নির্দিষ্ট স্থান থাকে। শত ব্যস্ততার মাঝে সেই স্থানটিতে যেতে বাধ্য। আর সেই স্থানটির নাম হচ্ছে জন্মস্থান বাড়ি-ঘর।  কর্মব্যস্ততা মানুষকে এমন কিছু শিক্ষা দিয়ে থাকে যা ঘর থেকে বের হতে বাধ্য করে। জীবনের তাগিদে মানুষ তার নিজের জন্মস্থান ত্যাগ করতে হয়। কিন্তু একটা সময় তাকে, সেই জন্মস্থানে যেতে হয়। কোন মানুষ তার জন্মস্থান ভুলতে পারবে না। যেখানে তার শৈশব স্মৃতি জড়িত আছে, যেখানে আছে তার মায়ের ভালোবাসা ও বাবার শাসন, স্ত্রী ও সন্তানের পরম মায়া। তাই কর্মস্থল হয়ে ওঠে না স্থায়ী কোন ঠিকানা। আমার মত প্রতিটি মানুষই কিছু সময়ের জন্য হলেও তার জন্মভূমি বা জন্মস্থান যেতে হবে।

 

 

অনেকদিন পর, বাড়ির উদ্দেশ্যে যাত্রা করলাম। অনেকদিন পরে প্রিয় মানুষগুলো মুখ দেখতে পাবো। সবার সাথে মন খুলে কথা বলতে পারব। প্রতিটি সন্তানের বাবা-মা আশায় থাকে তার সন্তান কখন বাড়ি ফিরবে। বাবা-মার মতো প্রতিটি সন্তান আশায় থাকে তার বাবা কখন তার জন্য খেলনা নিয়ে আসবে।

কিন্তু একটি মানুষ যাকে নিয়ে সারাটা জীবন চলতে হয়। সে নিরবে অপেক্ষা করে, তার প্রিয়তমা কখন বাড়িতে আসবে কিন্তু কাউকে বলতে পারেনা। যে মানুষটি নিরবে অপেক্ষা করে, সে যদি প্রিয়তমাকে কাছের পেয়ে যায় তাহলে তার আনন্দের সীমা থাকে না।  কারণ সে প্রিয় মানুষটির অনেকদিন পর দেখতে পেল। 
 আমরা সবাই ভালোবাসার চাদরে আবদ্ধ। জীবন মানুষকে অনেক কিছু শিখায়

 

708.732 SEREY
5 votes
0 downvote
Global
Global

Comments