Serey is utilizing Blockchain technology

Movie review:- [ENG-BNG]...Kabhi Khushi Kabhie Gham...

mamun

## Kabhi Khushi Kabhie Gham... Full Movie Review

 

 

 

 

 How are you all? I hope you are well. Today I am going to review a very interesting and very successful movie which is an Indian movie and this Indian movie has been running simultaneously in different countries for a long time and still people like this movie a lot.

 

 The main characters of the movie are Amitabh Bachchan, Jaya Bachchan, Shah Rukh Khan, Hrithik Roshan, Kajal, Rani Mukherjee and many more.

 

 The movie is a family related movie based on what is usually used in our social environment.

 

 # The main story of the movie

 

 

 Many beautiful producers and those who have worked with this movie have very nicely arranged the movie for which so much business has been successful and still it is a movie that people like.

 

 The two sons of Amitabh Bachchan and Jaya Bachchan are Shahrukh Khan and Hrithik Roshan in the movie. Shahrukh Khan is the eldest son and Hrithik Roshan is the youngest son. Shahrukh Khan studies abroad and finishes his studies there. In the village next to it,

 

 And from there the two of them started talking. At one point they fell in love but Shah Rukh Khan's family was very rich and Kajal's family was very middle class.

 

 

 

 

 But rich and middle class it was no problem for Amitabh Bachchan because he wanted to marry his son as per his own choice for which he likes Rani Mukherjee but if Shah Rukh Khan loves Kajal then how will he marry Rani Mukherjee.

 

 So they both decided to run away from home and get married and in the end they did that and they both fled to London. At that time Amitabh Bachchan abandoned him but one thing the two parents loved his son so much so they never forgot him. And couldn't forget that at different times they thought of him for different reasons.

 

 

 

 In this way, the little boy grew up and I loved the little boy and his elder brother very much. From a young age, he saw his elder brother and he grew up. He tried to continue the way his elder brother did and at one stage he became very big.

 

# An interesting scene

 

 When the eldest son comes home by helicopter after studying abroad, his mother stands by the door holding a prayer plate before opening the door of his house and as soon as he opens the door, his mother hugs him and starts crying.

 

 

 

 

 

 

 I really liked this scene and I like this movie more.

 

 ### Next story

 

 Now when he grows up he decides to bring his brother and sister-in-law back to their home because he saw every day his mother trembled a lot for his older brother and the younger son could not bear to see it. Silently suffered a lot.

 

 Seeing all this, the little boy decided in his mind who would bring his brother Bhabi back to their house. Shah Rukh Khan had a younger brother like Gache and a younger sister named Kareena Kapoor.

 

 The two of them were studying in the same school and in the same university. They have been in love with each other since then and when they find out that they are relatives of the two of them, they think at night that they will leave their family with them.

 

 

 

 But the elder brother did not know what his younger brother looked like and the younger brother knew what his brother looked like because he has been watching since he was younger and the elder brother did not know what he was like when he was young. Then the younger brother left for London and there He also contacted his elder brother and sister-in-law and when it was revealed that he was his younger brother, the elder brother hugged him and started crying.

 

 Seeing all this, the elder brother's love and affection for his parents could not be fixed on him anymore, he thought I will leave with these two.

 

 Then Amitabh Bachchan told Jaya Bachchan to come to London to meet him. In a shopping mall, the younger brother tricked his younger brother into coming and asked his parents to come to the same mall so that everyone could meet face to face.

 

 

 

 Finally there is a happy ending to this movie. You can watch a very beautiful movie if you want because I am giving the video YouTube link.

https://youtu.be/Emwgb7_nrHQ

 

 I hope you guys like this review. In fact, not all the words can be said. I have highlighted some parts of it among you. I hope you will like it.

 

# Bangla..

 

কাভি খুশি কাভি গাম,,,,, ফুল মুভি রিভিউ

 

সবাই কেমন আছেন আশা করি অনেক ভাল আছেন আপনাদের মাঝে আজকে খুব মজাদার এবং প্রচুর ব্যবসা সফল একটি মুভি রিভিউ করতে যাচ্ছি যেটা একটি ইন্ডিয়ান চলচ্চিত্র এবং এই ইন্ডিয়ান সিনেমাটি বিভিন্ন দেশে একযোগে চলেছিল অনেকদিন যাবত এবং এখনো পর্যন্ত মানুষ এই মুভিটা অনেক পছন্দ করে।

 

মুভিটির মূল চরিত্রে কাজ করেছেন অমিতাভ বচ্চন জয়া বচ্চন শাহরুখ খান রিত্তিক রোশন কাজল রানী মুখার্জি এবং আরো অনেকে।

 

মুভিটি একটি ফ্যামিলি রিলেটেড মুভি যেখানে সাধারণত আমাদের সামাজিক পরিবেশে কেমনটা আচার ব্যবহার করা হয় তারই ওপর ভিত্তি করে এই মুভিটি তৈরি করা।

 

মুভিটির মূল গল্প

 

 

অনেক সুন্দর করে প্রযোজক এবং যারা এই মুভিটির সাথে কাজ করেছে তারা খুব সুন্দর করে সাজিয়েছে মুভিটি যার জন্য এত ব্যবসা সফল হয়েছে এবং এখনও পর্যন্ত মানুষের কাছে এটা পছন্দনীয় একটি মুভি।

 

অমিতাভ বচ্চন ও জয়া বচ্চনের দুই ছেলে এই মুভিতে একজন শাহরুখ খান এবং আরেকজন হৃত্বিক রোশন, শাহরুখ খান বড় ছেলে এবং হৃত্বিক রোশন ছোট ছেলে,শাহরুখ খান বিদেশে পড়ালেখা করে এবং সেখান থেকে পড়ালেখা শেষ করে সে যখন বাড়ি ফেরে বাড়ি আসার পর তার সাথে কাজলের দেখা হয় তার পাশের গ্রামে,

 

এবং সেখান থেকে তাদের দুজনের ভেতর কথা মতন হতে থাকে একপর্যায়ে তারা দুজন দুজনকে ভালোবেসে ফেলেন কিন্তু শাহরুখ খান এর পরিবার ছিল অনেকটা ধনী এবং কাজলের পরিবার ছিল অনেকটা মধ্যবিত্ত।

 

 

কিন্তু ধনী এবং মধ্যবিত্ত এটা কোন সমস্যা ছিল নাঅমিতাভ বচ্চনের কারণ সে চেয়েছিল তার ছেলেকে সে বিয়ে দেবে তার নিজের পছন্দমত যার জন্য সে রানী মুখার্জিকে পছন্দ করে কিন্তু শাহরুখ খান তো কাজলকে ভালোবাসে তাহলে রানী মুখার্জির সাথে কিভাবে বিয়ে করবে।

 

তাই তারা দুজন ঠিক করে তারা বাড়ি থেকে পালিয়ে বিয়ে করবে এবং শেষ পর্যন্ত তারা সেটাই করে তারা দুজন পালিয়ে যায় লন্ডনে।তখন এ কথা শুনে অমিতাভ বচ্চন তাকে ত্যাজ্যপুত্র করে কিন্তু একটা জিনিস মাতা-পিতা দুইজন তার ছেলেকে খুবই বেশি ভালোবাসতো তাই তারা কখনোই তাকে ভুলতে পারেনি এবং ভুলতে পারত না বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কারণে তারা তার কথা মনে করত।

 

এভাবে আস্তে আস্তে ছোটছেলেও বড় হতে থাকে এবং ছোট ছেলে ও তার বড় ভাইকে অনেক বেশি ভালবাসতাম ছোটবেলা থেকেই সে তার বড় ভাইকে দেখে সে বড় হয়েছে তার বড় ভাই যেভাবে চলতে সেভাবেই চলো চেষ্টা করেছিল এবং এক পর্যায়ে সে অনেক বড় হয়ে যায় ।।

 

আকর্ষণীয় একটি দৃশ্য

 

বড় ছেলে যখন বিদেশ থেকে লেখাপড়া শেষ করে হেলিকপ্টার করে বাড়ি আসে তার বাড়ির দরজা খোলার আগেই তার মা পূজার থালা হাতে করে দাঁড়িয়ে থাকে দরজার পাশে এবং দরজা খুলতেই তার মা তাকে জড়িয়ে ধরে কাঁদতে থাকে।

 

এই দৃশ্যটি আমার কাছে অনেক ভালো লেগেছিল এবং এটার জন্য আমার মুভিটি বেশি পছন্দ।

 

পরের গল্প

 

এখন যখন সে বড় হয়ে যায় সে ঠিক করে সে তার ভাই ও ভাবিকে আবার ফিরিয়ে নিয়ে আসবে তাদের বাড়িতে কারন সে প্রতিদিনই দেখতো তার মা অনেক কাঁপতো তার বড় ভাইয়ের জন্য আর ছোট ছেলে সেটা দেখে সহ্য করতে পারত না তার বাপ হয়তো মনে মনে রাগ করত কিন্তু আসলে নিরবে অনেক কষ্ট পেত।

 

এসব গুলো দেখি ছোট ছেলে মনে মনে ঠিক করে ফেলল তার ভাইয়া ভাবি কে ফিরিয়ে নিয়ে আসবে তাদের বাড়িতে। শাহরুখ খানের যেমন একটি ছোট ভাই ছিলো গাছের ও তেমন একটি ছোট বোন ছিলো যার নাম কারিনা কাপুর।

 

তখন এরা দুইজন একই স্কুলে পড়তো একই ইউনিভারসিটিতে পড়তো এদের সাথে তখন থেকেই প্রেম দুজন দুজনের মধ্যে এবং যখন জানতে পারে এরা দুজন দুজনের আত্মীয় তখনই রাত ভেবেই নেয় এরা তাদের পরিবারের সাথে ওদের দুজনকে মিলিয়ে ছাড়বে।

 

কিন্তু বড় ভাই জানতো না তার ছোটভাই দেখতে কেমন আর ছোট ভাই তো জান তুমি যে তার ভাই দেখতে কেমন কারণ সে ছোট থেকে দেখে আসছে আর বড় ভাই জানত না যে ছোটবেলায় কেমন ছিল বড় হয়ে সে কেমন হয়েছে।তারপর ছোট ভাই চলে গেলে লন্ডনে এবং সেখানে কোন ভাবে তার বড় ভাই ও ভাবির সাথে যোগাযোগও করলো এবং যখন পরিচয় হল যে সে তার ছোটভাই তখন বড় ভাই তাকে গলা জড়িয়ে ধরে কান্না করতে থাকলো।

 

এসব গুলো দেখে যে বড় ভাইয়ের এতো প্রেম এতো ভালোবাসা তার মা-বাবার উপর সে আর স্থির থাকতে পারলো না সে ভাবল আমি নিয়েই ছাড়বো এরা দুজন কে।

 

তখন অমিতাভ বচ্চন জয়া বচ্চনকে সে লন্ডনে আসার কথা বলল তার সাথে দেখা করার জন্য।একটি শপিং মলের ছল করে ছোট ভাই তার ভাবিও বড় ভাইকে আসতে বলল এবং একই মলে তার মা-বাবাকে আসতে বলতো যাতে করে সবাই সামনাসামনি মিলে যায়।

 

 সবাই সামনাসামনি এসে পড়ে এবং সবাই সবাইকে জড়িয়ে ধরে কাঁদতে থাকে এবং মা তাকে কাঁদতে কাঁদতে হলে তুই এতদিন আমাকে ছেড়ে থাকতে পারলে তখন সে বলে আমি পারি নাই কিন্তু কি করব বাবা যে আমাকে বলেছে তোর মুখ আমি দেখতে চাই না তাই আমি আমার মত তোমাদেরকে দেখায় নাই এত বছর ধরে।

 

অবশেষে একটি হ্যাপি ইন্ডিং হয় এই মুভিটির। অনেক সুন্দর একটি মুভি আপনারা চাইলে দেখতে পারেন কারণ ভিডিওটি ইউটিউব লিংক আমি দিয়ে দিচ্ছি।

 

 

আশা করি বন্ধুরা আপনাদের ভাল লেগেছে আমার এই রিভিউ টি আসলে সব কথাগুলো তো আর বলে পারা যায় না তার থেকে কিছু অংশ আপনাদের মাঝে তুলে ধরেছি আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে।

 

# *Thanks for visiting my account*

 

<center>![mamun benner.jpg](https://images.hive.blog/DQmUnWngsNJd1iJuX3FaX4QsVRNErcQFFFXaQ1Vq2hDc6su/mamun%20benner.jpg)

 

>I am Md. Mamun, Bangladeshi. However, due to work, I am curre

299.153 SEREY
7 votes
0 downvote
Global
Global

Comments