Serey is utilizing Blockchain technology

I shared my experience of cooking khichuri.

imaran

Hello blurt friends, how are you all, I hope everyone is well and healthy. With your prayers and God's infinite mercy, I am also well.

 

Today I will share some things with you, I hope you like it, so let's hear something about it. Today is the second Tuesday in February. We can't even imagine how fast time passes from our lives. In fact, even if everything can be stuck, time cannot be tied. It took a year to see this Corona epidemic. This coronavirus took the lives of many relatives.

 

 I am in Malaysia. You may know that this Karna epidemic has created a job crisis for millions of expatriates. In fact, the expatriates are now living a life of humanity. Being in lockdown here makes it very difficult for us to market. So today I cooked a recipe that can be eaten very easily and at low cost, everyone's favorite khichuri.

 

 

 In fact, khichuri is my favorite. I have loved eating khichuri since I was little. If there is meat with khichuri then it is not necessary to say that it is a tasty. Today I came to the room from duty and decided to cook khichuri. Cooking khichuri actually saves time and I love to eat it as it is my favorite

 This khichuri is very easy to cook. In fact anyone can cook it if we try. If you want to cook khichuri, take 500 grams of rice with 250 grams of rice. And cooking ingredients like salted onion and garlic are also given.

 In fact, today's recipe has been very tasty. I had a lot of fun. All of you are invited, you can also share, all my friends have left.

 

 Friends will sometimes cook khichuri in their spare time. It can be eaten in a short time with a lot of fun. In fact, khichuri is a very tasty food. It is a very favorite food of all of us Bangladeshis.

 

 Friends, I wish you all good health till today. And protect yourself from the Corona epidemic. Keep a distance at all times and use a mask. Wash your hands frequently. God bless you.

হ্যালো বাল্ট ব্ন্ধুরা, সবাই কেমন আছেন আশা করি সবাই ভাল আছেন এবং সুস্থ আছেন।আপনাদের দোয়ায় এবং আল্লাহর অশেষ রহমতে আমিও ভাল আছি।

আজ আমি আপনাদের সাথে কিছু কথা শেয়ার করব আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে তো চলুন সে বিষয়ে কিছু কথা শোনা যাক। আজ দোসরা ফেব্রুয়ারি রোজ মঙ্গলবার। আসলে সময় যে কত দ্রুত আমাদের জীবন থেকে চলে যায় আমরা কল্পনাও করতে পারি না। আসলে সব কিছু আটকে রাখা গেলেও সময়কে বেঁধে রাখা যায় না। এই করোনা মহামারী দেখতে দেখতে একটি বছর চলে গেল। অসংখ্য আপনজনের প্রাণ কেড়ে নিল এই করোনাভাইরাস।

আমি মালয়েশিয়াতে অবস্থান করছি আপনারা হয়তো জানেন এই করণা মহামারীর কারণে লক্ষ লক্ষ প্রবাসীদের কাজের সংকট তৈরি হয়েছে। আসলে প্রবাসীরা এখন মানবতার জীবন যাপন করছে। এখানে লকডাউনে থাকার কারণে আমাদের বাজার ঘাট করার খুবই সমস্যা। তাই আজ খুব সহজে আর অল্প খরচে খাওয়া যায় এমন একটি রেসিপি রান্না করলাম সবার প্রিয় খিচুড়ি।

 

আসলে খিচুড়ি আমার ভীষণ প্রিয়। আমি ছোট থেকেই খিচুড়ি খেতে খুবই পছন্দ করি। খিচুড়ির সাথে যদি মাংস থাকে তাহলে তো আর বলা লাগে না সে যে কি এক টেস্টি। আজকে ডিউটি থেকে রুমে এসেই সিদ্ধান্ত করলাম খিচুড়ি রান্না করবো। খিচুড়ি রান্না করলে আসলে সময় সাশ্রয় হয় আর আমার যেহেতু প্রিয় তাই খেতে খুব ভালোবাসি

এই খিচুড়ি রান্না করা খুবই সহজ বিষয়। আসলে আমরা চেষ্টা করলে যে কেউ এটা রান্না করতে পারি। আপনি যদি খিচুড়ি রান্না করতে চান তাহলে পরিমাণমতো চাউল ধরুন 500 গ্রাম চাউল এর সাথে আড়াইশো গ্রাম ডাউল দিতে হবে। আর রান্নার সামগ্রী যেমন ঝাল পেঁয়াজ রসুন এগুলোতো দেওয়া লাগে।

আসলে আজ রেসিপি টা খুবই সুস্বাদু হয়েছে। খুব মজা করে খেলাম। আপনাদের সকলের দাওয়াত রইল আপনারাও শেয়ার করতে পারেন চলে আসেন আমার সকল বন্ধুরা।

 

তা বন্ধুরা মাঝে মাঝে অবসর সময়ে খিচুড়ি রান্না করবেন এটা অল্প সময়ে খুবই খুব মজা করে খাওয়া যায়। আসলে খিচুড়ি খুবই মুখরোচক একটি খাবার। আমরা বাংলাদেশীদের এটি সকলেরই খুব প্রিয় একটি খাবার।

 

বন্ধুরা আজ এ পর্যন্তই সকলে ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন এই কামনা করি। আর করোনা মহামারী থেকে নিজেদেরকে রক্ষা করুন সব সময় দূরত্ব বজায় রেখে চলুন এবং মাস্ক ব্যবহার করুন বারবার হাত ধৌত করুন। আল্লাহ হাফেজ।

805.327 SEREY
8 votes
0 downvote
Global
Global

Comments