Serey is utilizing Blockchain technology

Corona epidemic is the life of expatriates

imaran

Assalamu alaikum ,hello serey friends ,how are you all? I Hope everybody is well and healthy. With your prayers and God's infinite mercy, I am also well. In fact, the rate at which corona patients are increasing every day in Malaysia is always a concern in the minds of the Malaysian expatriates are living a dehumanized life by extending the 14-day lockdown period in Malaysia. 

 

Because you will realize that it is not possible to express in words how difficult it is to be a prisoner in another country. Because if you stay abroad for one day, its cost does not sit because every year the government of this country has to pay 3500rm to each expatriate for visa.

 

In fact, the government does not have to pay any money to stay in our own country, but we have to pay rent to stay in another country. Alas, our life stopped in Corona, but our expenses did not stop. That is why every expatriate is disregarding the illusion of his own life, disobeying the orders of the government and going out in search of work and every day I see in the news that he is being harassed by the police of this country. What to do if you are sitting in the room, you will not have rice in your mouth and you will not have to eat your own family because an expatriate is looking at his whole family, maybe his whole family lives on his own income, so there is no one more helpless like an expatriate. And there are no people in this society who can understand their grief.

 

Because an expatriate plays a leading role in the development of the country as well as his own family but in their time of danger one cannot expect a small amount of cooperation from the government. More than a thousand Bangladeshis die in Malaysia every year but the government does not even bear the money sent to the country for the bodies of these expatriates. Who else is as unfortunate as them? 

Every expatriate works for the development of the country and the development of the family with the last point of life but no one understands their grief. I wish you all the best and pray for the city for our expatriates. Hey, don't let every expatriate brother be well in the epidemic, may Allah grant him the gift of being more and more patient. May Allah bless him.

আসসালামু আলাইকুম হ্যালো serey বন্ধুরা সবাই কেমন আছেন? আশা করি সবাই ভাল আছেন এবং সুস্থ আছেন। আপনাদের দোয়ায় এবং আল্লাহর অশেষ রহমতে আমিও ভালো আছি। আসলে প্রতিদিন যে হারে করোনা রোগী বাড়ছে মালয়েশিয়াতে তাতে মনের মধ্যে সবসময় আশঙ্কা কাজ করছে কারণ মালয়েশিয়াতে আবারও 14 দিনের লকডাউন এর সময়সীমা বর্ধিত করছে এতে করে মালয়েশিয়ান প্রবাসীরা মানবেতর জীবনযাপন করছে। কারণ আপনারা অনুধাবন করতে পারবেন যে অন্যের দেশে ঘরের মধ্যে বন্দি থাকা যে কতটা কষ্টের তা কাউকে ভাষায় প্রকাশ করে বোঝানো সম্ভব না। কারণ বিদেশে একটি দিন বসে থাকলে তার খরচ বসে থাকে না কারণ প্রত্যেক বছর এ দেশের সরকারকে ভিসা বাবদ প্রত্যেক প্রবাসীকে 3500rm দেওয়া লাগে। আসলে নিজের দেশে থাকতে তো কোন টাকা দেওয়া লাগে না সরকারকে কিন্তু অন্য দেশে থাকতে গেলেও আমাদেরকে ভাড়া দিয়ে থাকতে হয়। হায়রে জীবন করোনার মধ্যে আমাদের জীবনযাত্রা থমকে গেলেও আমাদের খরচ কিন্তু থমকে যায়নি। তাইতো প্রত্যেকটা প্রবাসী নিজের জীবনের মায়া কে তুচ্ছ করে সরকারের আদেশ অমান্য করে কাজের সন্ধানে বাহির হয়ে পড়ছে এবং প্রতিদিন নিউজ এ দেখতেছি নানারকম হয়রানির শিকার হচ্ছে এদেশের পুলিশের কাছে। কি করবে রুমে বসে থাকলে তো আর মুখে ভাত উঠবে না এবং নিজের পরিবারের ও না খেয়ে থাকতে হবে কারণ একজন প্রবাসী মুখের দিকে তার পুরো পরিবার চেয়ে থাকে হয়তো তার একার ইনকামে পুরো পরিবার চলে তাই করোনা মহামারীতে একজন প্রবাসীর মত এত বড় অসহায় আর কেউ নাই। আর এদের দুঃখ বোঝার মত মানুষ হও নাই এই সমাজে। কারণ একজন প্রবাসী তার নিজের পরিবারের পাশাপাশি দেশের ও উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে কিন্তু এদের বিপদের সময় সরকারের কাছ থেকে সামান্য পরিমাণ সহযোগিতা আশা করা যায় না। প্রতিবছর মালয়েশিয়াতে মারা যায় বাংলাদেশি সংখ্যা হাজারের অধিক কিন্তু এই প্রবাসীদের লাশ দেশে পাঠানো টাকাও সরকার বহন করে না। এদের মত হতভাগা আর কে আছে। প্রত্যেকটা প্রবাসী জীবনের শেষ বিন্দু দিয়ে দেশের উন্নয়ন এবং পরিবারের উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাই কিন্তু এদের দুঃখ কেউ বোঝেনা। তা বন্ধুরা সকলে ভাল থাকুন আর আমাদের প্রবাসীদের জন্য শহরের দোয়া করুন এই কামনা করি। আরে করোনা মহামারীতে প্রত্যেকটা প্রবাসী ভাই ভালো থাকুক বেশি বেশি ধৈর্য ধারণ করার তৌফিক দান করুক আল্লাহ এই কামনা করি ।আল্লাহ হাফেজ।

562.741 SEREY
4 votes
0 downvote
Global
Global

Comments