Serey is utilizing Blockchain technology

I shared the story of my life in exile with yours.

imaran

Hello serey friends good evening how are you all I hope everyone is well and healthy. With your blessings and God's infinite mercy, I am also well.

 

 Today I will share with you some of my life in exile. I hope you like it, so let's hear something about it.

 

 

 I have been staying in Imran Malaysia for the last eight years. In fact, our times go by very quickly. In fact, in this short life we have no end to our desires and no end to our dreams.

 

 In fact, each of us travels abroad with a lot of dreams so that we can alleviate the grief of the family, we can put a smile on the face of our parents, we can make our younger siblings human, we can help all our relatives. But no matter how much we think about living abroad or in our own country, it seems that money flies abroad, but in fact, it is never understood how difficult life is abroad.

 

 

 When I was living in the country, I thought I would go abroad, I don't think about anything else, I just thought when I will go abroad, I will earn more and more money, how many different dreams I kept to myself. Happiness cannot be found for a moment in another country, leaving one's homeland behind.

 

 In fact, every one of us expatriates abroad is the only one running after the mirage. When we come abroad to buy happiness, every expatriate forgets his own happiness.

 

 Why don't we find ourselves forgetting our happiness when we go to make everyone happy. In my 8 years of experience, I realized that there is never happiness in exile, there is boundless sorrow and pain that no one can ever feel except the expatriates themselves.

 

 

 We cannot express in words how neglected we are as expatriates because thousands of people die in exile every year. They have to reach out to others to take their bodies to Tuku country but this expatriate sends remittances every month to improve his country No.

 

 What could be as unfortunate as this? The song about the fate of an expatriate is like the bull of Kalur. They forget about happiness while enduring hardships.

 

 

 So friends, I wish you all well and healthy, Allah Hafez till today

 

হ্যালো serey বন্ধুরা শুভ সন্ধ্যা সবাই কেমন আছেন আশা করছি সবাই ভাল আছেন এবং সুস্থ আছেন। আপনাদের দোয়ায় এবং আল্লাহর অশেষ রহমতে আমিও ভাল আছি।

 

আজ আমি আপনাদের সাথে আমার প্রবাস জীবনের কিছু কথা শেয়ার করব। আশা করি আপনাদের ভালো লাগবে তো চলুন সে বিষয়ে কিছু কথা শোনা যাক।

 

আমি ইমরান মালয়েশিয়াতে অবস্থান করছি গত আট বছর যাবত। আসলে আমাদের সময় গুলো খুব দ্রুত জীবন থেকে চলে যায়। আসলে আমাদের এই ছোট্ট জীবনে আমাদের চাওয়ার কোন শেষ নাই আর আমাদের স্বপ্নের কোন শেষ নাই।

 

আসলে আমরা প্রত্যেকে অনেক স্বপ্ন নিয়ে বিদেশে পাড়ি জমাই যাতে পরিবারের দুঃখ কষ্ট দূর করতে পারি বাবা মায়ের মুখে হাসি ফোটাতে পারি ছোট ভাইবোনদের মানুষ করতে পারি আত্মীয়-স্বজন সকলকে সাহায্য করতে পারা পর্শি। কিন্তু বিদেশ তো আর নিজের জন্মভূমি না দেশে থাকতে আমরা কত কিছু চিন্তা করি না বিদেশে মনে হয় টাকা ওড়ে কিন্তু আসলে বিদেশে না আসলে এটা কখনো বোঝা যায় না যে বিদেশে জীবন কতটা কষ্টের।

 

যখন দেশে থাকতাম ভাবতাম বিদেশ যাবো তখন আর কোন কিছুতে মন বসছে না শুধু মনে হতো কবে বিদেশ যাবো বেশি বেশি টাকা উপার্জন করবো কত নানারকম স্বপ্নে নিজেকে ধরে রাখতো তারপর যখন বিদেশে ছিলাম তখন না বুঝতে পারলাম যে পরিবার আপনজন মা-বাবা ভাই-বোন আত্মীয়-স্বজন সবাইকে রেখে নিজের জন্মভুমিকে রেখে অন্য দেশে একটা মুহূর্তের জন্য সুখ পাওয়া যায় না।

 

আসলে আমরা প্রত্যেকটা প্রবাসী বিদেশে শুধুমাত্র আমরা মরীচিকার পিছনে ছুটে বেড়ায়। বিদেশে সুখ কিনতে এসে আমরা প্রত্যেকটা প্রবাসী আমাদের নিজের সুখকে ভুলে যায়।

 

আমরা সকলকে সুখী করতে যেয়ে নিজেরাই কখন আমাদের সুখের কথা ভুলে যায় সেটা কেন পাই না। 8 বছরের অভিজ্ঞতায় যেটা বুঝতে পারলাম প্রবাসে আসলে কখনো সুখ থাকে না থাকে সীমাহীন দুঃখ-কষ্ট-বেদনা যেটা কেউ কখনো অনুভব করতে পারে না শুধুমাত্র প্রবাসীরা নিজেরা ছাড়া।

 

 

আমরা প্রবাসীরা কতটা যে অবহেলিত সেটা ভাষায় প্রকাশ করার মতো না কারণ প্রত্যেক বছর প্রবাসে হাজার হাজার লোক মারা যায় তাদের মরদেহ টুকু দেশের নিয়ে যাওয়ার জন্যঅন্যদের কাছে হাত পাততে হয় কিন্তু এই প্রবাসী জীবিত থাকতে সে প্রত্যেক মাসে রেমিটেন্স পাঠায় নিজের দেশের উন্নতির জন্য কিন্তু সরকারের তাতে কোনো মাথাব্যথা নেই।

 

এর মত দুর্ভাগ্য কি হতে পারে একজন প্রবাসীর ভাগ্যে গান প্রবাসীর আসলে কলুর বলদ এর মতই। এরা কষ্ট সইতে সইতে সুখের কথা ভুলেই যাই।

 

 

তো বন্ধুরা সকলে ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন এই কামনা করি আজ এ পর্যন্তই আল্লাহ হাফেজ

1047.520 SEREY
4 votes
1 downvote
Global
Global

Comments